"ইতিহাস" বিভাগে করেছেন
কোন ঘটনা কিভাবে ইতিহাস হতে পারে উদাহরন দাও? ইতিহাস ও অতিতের তুলনা কর?

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন
ইতিহাস

ইতিহাস হচ্ছে মানুষের অতীত ঘটনা ও কার্যাবলির বিবরণ। অর্থাৎ অতীতে একটি মানুষ কি করেছে। কি প্রতাক্ষা করেছে, কোন ঘটনার সাথে জড়িত ইত্যাদির বিবরণ অধ্যায়ন করা।

অতীত হলেই কি সব ইতিহাস হবে?
না । অতিত হলেই সব ইতিহাস হবে না। আপনি গতকাল যেটা করেছেন আজ সেটা অতীত। একটু আগে যেটা করলেন এখন সেটা অতীত। তাহলে ইতিহাস কোনটা হবে। বিভিন্ন ইতিহাসবেত্তাগণ বলে থাকেন যে, মানুষের কোন ঘটনা ৪০ বছরের পূরাতন হলেই কেবল তা ইতিহাসে অন্তর্ভূক্ত হতে পারে।
অর্থাৎ যেটি এখনো ৪০ বছর পূর্ণ করেনি সেই ঘটনাকে আমরা অতীত বলতে পারি কিন্তু ইতিহাস হবেনা।

ইতিহাসের জনক হচ্ছেন হেরোডাটাস।
ইতিহাসের মাধ্যমেই কেবল আমরা আমাদের সূদুর অতীতের পূর্বপুরুষগনের কর্মকান্ড সম্পর্কে জানতে পারি।
ইতিহাস এওক্টি বৃহত সূদুরপ্রসারী বিষয়। কিন্তু বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রয়োজন অনুযায়ী অংশ বিশেষ আমরা যা চর্চা করি তা কখনো মানবিক বিজ্ঞান আবার কখনো সামাজিক বিজ্ঞান শাখা হিসাবে অধ্যায়ন করি।
কিন্তু ইতিহাস মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞানের এক সেতুবন্ধন রুপে কাজ করে।

ইতিহাস কিভাবে জানা যায়?

ইতিহাসের সংরক্ষন থেকে আমরা ইতিহাস জানতে পারি। কিন্তু ইতিহাস কোন এক ব্যক্তি বিশেষ বা নির্দিষ্ট কোন প্রতিষ্ঠান সংরক্ষন করেনা। ইতিহাস বিভিন্ন মানুষের বিভিন্ন কাজের ডাইরী হিসাবে সংরক্ষিত হয়। যেমন আজ যদি আপনি বাসে চড়ার সময় আপনার অভিজ্ঞতার বিবরণ লিখে রাখেন। তবে আগামীতে পরবর্তী প্রজন্মের কেউ সেটি পেলে তা তার কাছে আপনার ইতিহাস হবে। এই ডাইরি থেকে তখন ঐ ব্যক্তি জানতে পারবেন এখন বা তার কাছে ২০২০ সালে কেমন ছিল যাতায়াত ব্যবস্থা। কতটা ইন্নত ছিল ইত্যাদি।

তবে সব সময় লিখিত ইতিহাস পাওয়া নাও যেতে পারে। বিশেষ করে আমরা তো প্রাচীন কালের লিখিত ইতিহাস পায়না তেমন। কারন সে সময় মানুষ লেখা পড়া আবিষ্কার করেনি। তবুও আমরা তাদের সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পারছি তাদের ধ্বংসাবশেষ, ব্যবহৃত অস্ত্র, ছিত্র, গুহা ইত্যাদি থেকে। আমার প্রাগ ঐতিহাসিক যযুগের ইতিহাস পায় তাদের ফসিল, পদচিহ্ন, অস্থি ইত্যাদি আবিষ্কারের মাধ্যমে।
আবার আমাদের পাওয়া বা আবিষ্কারের সবকিছু মিউজিয়ামে সংরক্ষন করে রাখা হয়। কাজেই মিউজিয়াম হচ্ছে ইতিহাসের একটি ভাল উৎস।

তবে এগুলো বাদ দিলে মানুষের কর্মকান্ড নিয়ে যে ইতিহাস তা জানার নির্ভরযোগ্য মাধ্যম হচ্ছে লিখিত মাধ্যম। আমরা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানতে পারি এই লিখিত রুপ থেকেই।

অতীত কি?
 যা কিছু ঘটে গেছে। বর্তমান সময়ে নেই তার সব কিছুই অতীত। তবে অতি নিকট অতীতকে বর্তমান ধরা হয় গ্রামার নিয়মে। যেমন ৫ মিনিট আগে লেখা শুরু করলাম। সময় হিসাবে শুরুর সময় অতীত হলেও লেখা শেষ হয়নি তাই এটি বর্তমান ধরা হয়। একারনে সেটাই পূর্ণ্রুপে অতীত যা হয়ে গেছে এমন আগে যে, তার কোন ফলাফল পর্যন্ত বর্তমানে নাই এবং ভবিষতেও পাবোনা।
সাধারণ অর্থে মানুষের স্মৃতি বিজড়িত সকল ঘটনাকেই অতীত বলা হয়। অর্থাৎ একটি মানুষের জীবদ্দশায় যা কিছু ঘটে গিয়েছে, এখন সব স্মৃতির পাতায় তার সব কিছুকে অতীত বলা হয়। যেমন আপনি প্রথম যেদিন স্কুলে গিয়েছিলেন। বা আপনার ১০ বছর আগে ঘটা কোন কথা যা আপনার বার বার মনে পড়ে এগুলোকে সব অতীত বলে। ব্যক্তিগত বা সামগ্রিক সবকিছুই অতীত হতে পারে। কিন্তু ব্যক্তিগত বিষয়কে অনেকেই ইতিহাস বলেন না। আপনার ঘটনাগুলো কেবল অন্য ব্যক্তির কাছে ইতিহাস হবে বলে অনেক সমাজ বিজ্ঞানী মনে করেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
1 উত্তর
24 এপ্রিল "ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন রিপন
1 উত্তর
27 নভেম্বর 2020 "ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sk
11 জন সক্রিয় সদস্য
0 জন নিবন্ধিত সদস্য 11 জন অতিথি
আজকে পরিদর্শন : 2288
...