"সাইকিয়াট্রিক পরামর্শ" বিভাগে করেছেন
আমি আমার বন্ধুদের সাথে কথা বলতে পারিনা। পারিনা বলতে আমি অযথা কথা বলতে পারিনা। নিজেকে একদম বেকার লাগে।  নিজেকে চেঞ্জ করার চেষ্টা বহুবার করেছি কিন্তু সম্ভব হয়নি। এছাড়াও আমি অযাথা কথা নিজের মা-বাবা (বিশেষ করে মা) ছাড়া তেমন কারো সাথে বলতে পারিনা। আমাকে সবাই খারাপ বলে। বন্ধুদের সাথে যাইবা বলি ক্লাসের মেয়েদের সাথে বলিনা (অপ্রয়োজনীয় কথাবার্তা) ।  পাড়ার সবাই আমাকে নিয়ে তামাশা করে।  এছাড়া আমি উপর দিয়ে কারো সাথে কথা বলতে পারিনা। ছোট থেকে আত্মীয়স্বজনদের (মামা - চাচা) ডাকি না। এটা নিয়েও সবাই আপসোস করে। এখন কি করব?  

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন
মারুফ ভাইয়ের পরামর্শের অপেক্ষা করুন, আপনি যে ব্যাখ্যা দিলেন তা মারুফ ভাইয়ের সাথে মিলে যাচ্ছে দেখি।

সাধারণ ভাবে, কথা বলা হচ্ছে একটি শিল্প, বাচালতা, গাল্প করতে পারা বা বাকপটু বা বাগ্মীতা হচ্ছে ছোট বেলা থেকেই পরিবেশ ও অভ্যাসগত একটা ব্যাপার।

ধরুন আপনি এমন পরিবারে জন্ম নিয়েছেন যেখানে বেশি কথা বার্তা দুষ্টমী করার সুযোগ পাননি, একেবারে বাচ্চা অবস্থাও দুষ্টমীর জন্য বকা বা মার খেয়েছেন, বহু মানুষের সান্যিধ্য পাননি, এভাবে বড় হলে আপনি ঠিক এমনি হবেন, অপ্রয়োজনীয় বিষয় নিয়া কথা গল্প শুরু করার শক্তি আপনার গড়ে উঠবেনা। 

আবার জিনগত কিছু বিষয় আছে যেখানে একটি মানুষ অত্যান্ত লজিকাল মনের অধিকার, বিজ্ঞান মনস্ক, খাতা কলমে সে কি পাস সেটা বড় নয় কিন্তু তাহার ব্রেন ভাল, যেকোন বিষয়ে বুঝ শক্তি প্রখর। এই ধরনের মানুষও কথা বলতে পারেনা। এরা শুধু প্রকৃত বিষয় ও মূল কথাকে গভীর সাহিত্যিক অর্থপূর্ণ বাক্যে বলে। অযথা প্যাচাল পাড়তে এরা আগ্রহীও নয়, এরা শান্ত স্বভাবের, অন্তর্মুখী ব্যক্তি। 

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
07 জানুয়ারি "সাধারণ জিজ্ঞাসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Naeem
6 জন সক্রিয় সদস্য
0 জন নিবন্ধিত সদস্য 6 জন অতিথি
আজকে পরিদর্শন : 6966
...