0 টি ভোট
"বিজ্ঞান" বিভাগে করেছেন (3.6k পয়েন্ট)
কার্বহাইড্রেটের গুরুত্ব ব্যাখ্যা কর?

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (3.6k পয়েন্ট)
শর্করা কার্বহাইড্রেট দেহের একটি গুরুত্বপূর্ণ পুষ্টি উপাদান। এটি শরীরের জন্য অপরিহার্য্য।

নিম্নে শর্করার পূষ্টিগত গুরত্ব ব্যাখ্যা করা হলঃ-

কার্বহাইড্রেট বা শর্করার প্রধান কাজ হচ্ছে শক্তি উৎপাদন করা। শর্করা গ্লূকোজ হিসাবে কোষের পাওয়ার হাউসের মধ্যে বিভিন্ন জারন বিক্রিয়া করে তাপশক্তি ও ATP শক্তি উৎপন্ন করে।

ATP শক্তি দেহের সকল প্রকার বিপাকীয় শক্তি যোগায় এবং কোষকে প্রাণশক্তি প্রদান করে। তাপশক্তি কর্মক্ষমতা যোগায় এবং বাইরের তাপীয় পরিবেশ অনুযায়ী বেচে থাকার শক্তি যোগায়।

অতিরিক্ত শর্করা বা কার্বহাইড্রেট দেহে গ্লাইকোজেন হিসাবে সঞ্চিত থাকে। এর ফলে অধিক পরিশ্রমের সময় বা একদিন খাবার না খেতে পারলে এই গ্লাইকোজেন ভেঙ্গে শক্তি উৎপাদন করে সরবরাহ করে।

এছাড়া আমাদের শর্করা জাতীয় খাদ্যের মধ্যে যে রাফেজ উপাদান বা আশযুক্ত খাবার থাকে। এই আশ মূলত সেলুলোজ জাতীয় শর্করা। এই আশ জাতীয় সেলুলোজ পুরাপুরি পরিপাক না হলে পরিপাক কৃত বর্জ্যকে ঠেলে মলত্যাগে সাহায্য করে। খাবারে আশযুক্ত খাবার কম হলে অন্যন্য পরিপাককৃত বর্জ্য অন্ত্রে লেগে থাকার পরিমান ও সম্ভাবনা বেশি থাকে ফলে তা অন্ত্রে নানা ক্ষত ও আন্ত্রিক ক্যান্সার সৃষ্টি করতে পারে। তাই রাফেজ খাবারের গুরুত্ব অপরিসীম।

এছাড়া এই আশযুক্ত খাবার কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। খাদ্যে প্রোটিন বা ফ্যাটের অভাব হলে জটিল প্রক্রিয়ায় শর্করা থেকে কিছুটা এসকল উপাদান সংশ্লেষন করে নিতে পারে।

আবার দেহে অতিরিক্ত শর্করা জমলে তা মেদ বাড়িয়ে দেয় ফলে ওজন বেরে যায়। আর বাড়তি ওজন সহজে শরীরে নানা উপসর্গ ও ব্যাঘাত সৃষ্টি করে, ফলে নানা রকম শারীরিক রোগ হতে পারে। তাই শর্করা গ্রহন পর্যাপ্ত হওয়া অত্যান্ত জরুরী। যেহেতু শর্করা থেকেই শক্তি বা ক্যালরি উৎপন্ন হয় তাই বেশী পরিমান শর্করা গ্রহনের পাশা পাশি পর্যাপ্ত ব্যাম বা পরিশ্রম করে ক্যালরি নিয়মিত ক্ষয় করলে শরীর সুস্থ থাকবে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
0 টি উত্তর
0 টি ভোট
0 টি উত্তর
0 টি ভোট
0 টি উত্তর
0 টি ভোট
0 টি উত্তর
11 মার্চ "বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন রিপন (3.1k পয়েন্ট)
5 Online Users
0 Member 5 Guest
Today Visits : 8988
Yesterday Visits : 2293
Total Visits : 5086700
...