প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন নিবন্ধন বা রেজিষ্ট্রেশন ছাড়াই
0 টি ভোট
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (561 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (602 পয়েন্ট)

ইসলামী শরীয়তের উৎস ৪টি। যথাঃ-

১। কোরআন

২। হাদিস

৩। ইজমা ও 

৪। কিয়াস।

ব্যাখ্যাঃ-

১। কোরআনঃ কোরআন হচ্ছে মহান আল্লাহুতায়ালার বাণী। ইসলামী জীবন ব্যবস্থা কেমন হবে, কিসে আল্লাহু খুশি হোন, কিসে অখুশি হোন, তিনি আমাদের পৃথিবীতে কি জন্য পাঠিয়েছেন, আমাদের জন্য আদেশ নিশেষ কি? কিভাবে ব্যক্তি, সমাজ, রাষ্ট্র তথা বিশ্ব পরিচালনা করতে হবে ইত্যাদি আল্লাহুতায়ালা কোরআনের মাধ্যমে আমাদের বলে দিয়েছেন। এছাড়া জ্ঞান বিজ্ঞান, সকল জ্ঞানের উৎস এই কোরআন মাজীদ। এটি ইসলামী শরীয়তের প্রধান উৎস। যা স্বয়ং আল্লাহুতায়ালা কতৃক প্রণিত। কোরআনের আদেশ নিশেধ ইত্যাদি অমান্য করার কোন সুযোগ নাই। এটি একজন মুমিন বা ইসলামে বিশ্বাসী ব্যক্তির জন্য অবশ্যই পালনীয়। এছাড়া বিভিন্ন সমস্যার ক্ষেত্রে মানুষ নিজেরা ব্যবস্থা নিতে পারবে কিনা তাও বলে দেওয়া হয়েছে পবিত্র কোরআন মাজীদে।


২। হাদিসঃ হাদিস হচ্ছে মোহাম্মাদ (সাঃ) কতৃক কোরআনের বিস্তারিত ব্যাখ্যা যা মানুষ সহজে নিজ ভাষায় বুঝতে পারে। কোরআন হচ্ছে সমস্ত জ্ঞানের ভান্ডার কিন্তু কোরআনে প্রতিটি শব্দ আয়াত ইত্যাদির বিভিন্ন ব্যাখ্যা রয়েছে যা সময়, স্থান পরিবেশভেদে ভিন্ন হতে পারে। অনেক বড় জ্ঞানমূলক বিষয়কে কোরআনে খুবই অর্থবোধক ভাবেও তুলে ধরা হয়েছে যা ব্যাখ্যা বিশ্লেষন করে মানুষ বুঝতে পারে। নবী (সাঃ) মানুষকে বোঝানোর জন্য এভাবে কোরআনের বিভিন্ন শব্দ বা আয়াতের ব্যাখ্যা দিয়েছেন, তদ্রুপ অনুযায়ী যেসকল কাজ করেছেন তার সবই হাদিস।

কাজেই হাদিসও অবশ্য পালনীয় কারন এটি আল্লাহু তায়ালার বাণির ব্যাখ্যা বিশ্লেষন সাধারণ মানুষের জন্য। তাই হাদিস শরীয়তের একটি উৎস যা কোরআনের ব্যাখ্যা থেকে মানুষের জন্য বহু নীতি আদর্শ, কর্ম ইত্যাদি সমস্যার সমাধান দেয়।


৩। ইজমাঃ ইজমা অর্থ ঐক্যমত্যঃ ইসলামী জীবন ব্যবস্থা কোন স্থবিড় নয়। মানব সমাজ সর্বদা পরিবর্তনশীল। ইসলামেও পরিবর্তিত জীবন ব্যবস্থার সাথে বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের পথ রয়েছে।

যদি মানব সমাজে এমন কোন সমস্যার উদ্ভব ঘটে যা কোরআন ও হাদিসের আলোকে ব্যাখ্যা করা কঠিন বা সরাসরি মানুষ বুঝতে না পারলে অথবা শর্ত মিল না থাকায় কিংকর্তব্যবিমূঢ় হলে, সমস্যাটি নিয়া কোরআন হাদিস বিশেষজ্ঞ, আলেম পন্ডিত ইত্যাদি গুণীজন অনেকে মিলে কোরআন হাদিসের আলোকে ব্যাখ্যা করে একটি ঐক্যমত্য প্রতিষ্ঠা করে সিন্ধান্ত নেওয়াই হল ইজমা। মহানবী (সাঃ) বলেন আমার উম্মতগণ যারা কোরআন হাদিসকে আকড়ে থাকে তাদের ঐক্যমত্য ভূল হবেনা। কাজেই সমাজে উদ্ভব বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে ইজমা শরীয়তের গুরুত্বপূর্ণ উৎস। তবে সমস্যার ব্যাখ্যা যদি সরাসরি ও সহজে কোরআন বা হাদিসে পাওয়া যায়, সেক্ষেত্রে কোন রকম সুবিধা তোলার জন্য ইজমা প্রয়োগ করা যাবেনা।


৪। কিয়াসঃ কিয়াস হচ্ছে ব্যক্তি জ্ঞানের আলোকে বুদ্ধিমত্তা প্রয়োগ। যদি এমন  হয় যে কোন সমস্যার সমাধান কোরআন ও হাদিসে সরাসরি পাওয়া যাচ্ছেনা এবং ঐক্যমত করার জন্য যথেষ্ট আলেম বা জ্ঞানী ব্যক্তিও পাওয়া যাচ্ছেনা সেক্ষেত্রে ব্যক্তি তার নিজের কোরআন হাদিসের জ্ঞানের আলোকে নিজের বুদ্ধিমত্তা দিয়া বিচার করে সমস্যা সমাধান করতে পারবেন।


একদা নবী (সাঃ) একজনকে দূরে কোথাও বিচার কার্যে পাঠাচ্ছিলেন, তখন নবী (সাঃ) লোকটিকে জিজ্ঞাসা করলেন, সেখানে কিভাবে বিচার কাজ করবেন? লোকটি উত্তর দিল পবিত্র কোরআনের আলোকে, নবী (সাঃ) বলেন যদি কোরআনে খুজে না পাও? তখন লোকটি বলল হাদিস অনুসারে। নবী (সাঃ) বললেন সেখানেও যদি না পাও ? লোকটি বললেন জ্ঞানী আলেমদের সাথে পরামর্শ করে ঐক্যমত্যের ভিক্তিতে। তখন নবী (সাঃ) আবারও বললেন যদি সেখানে এমন কোন জ্ঞানী সৎ ব্যক্তি না পাও তাহলে? এবার লোকটি বললেন, কোরআন হাদিসে আমার যে টুকু জ্ঞান আছে, আপনার আদেশ নিশেধ থেকে যেটুকু শিখেছি তার আলোকে নিজের বুদ্ধি বিবেক দ্বারা সেই সিদ্ধান্ত নেব যা সবার জন্য কল্যাণ বয়ে আনে। তখন নবী (সাঃ) খুশি হলেন।

কাজেই কিয়াসও ইসলামে শরীয়তের উৎস।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর
10 জুলাই 2019 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন উর্বশী উষা (561 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর
0 টি ভোট
1 উত্তর
06 অক্টোবর 2019 "আন্তর্জাতিক বিষয়" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rihan Afreen (826 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
0 টি উত্তর
15 ফেব্রুয়ারি "বিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Waruf (3k পয়েন্ট)
+1 টি ভোট
1 উত্তর
02 জুলাই 2020 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন জামিয়ার রহমান (জামি) (17 পয়েন্ট)

4 Online Users
0 Member 4 Guest
Today Visits : 5784
Yesterday Visits : 7061
Total Visits : 3698287

বয়স গণনা করুন





     বয়স : 0 বছর     
            0 মাস
            1 দিন
...