"ভূ-অভ্যান্তর ও সমুদ্র" বিভাগে করেছেন
একজন লোক ধরুন গর্ত খুঁড়ল পৃথিবীর একপৃষ্ঠ থেকে অপর পৃষ্ঠ পর্যন্ত।খুঁড়তে পারলো ধরে নিন।এবার সে লাফ দিল।সে কি অপর পৃষ্ঠে যেতে পারবে?

1 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন
না পারবেনা। তার পড়ন্ত বেগ কেন্দ্র পর্যন্ত থাকবে। অভিকর্ষ বলের প্রভাবে পড়তে পড়তে কেন্দ্র পর্যন্ত আসলে তার অভিকর্ষ বল g শুন্য হয়ে যাবে এবং পড়ন্ত বেগও থেমে যাবে। কেন্দ্রে সে নিশ্চল অবস্থায় থাকবে যদি না সে নিজ থেকে কোন বল প্রয়োগ করে। যেহেতু অপর পৃষ্ঠ পর্যন্ত যেতে কেন্দ্র থেকে আরও অর্ধেক পথ যেতে হবে তাই বাহ্যিক অতিরিক্ত বল প্রয়োগ না হলে কেন্দ্রে আটকে থাকবে। অপরপাশে যাবেনা।
করেছেন

ধরি, পৃৃৃৃথিবীর একদিক থেকে আর একদিক পর্যন্ত গর্ত করা সম্ভব হল ৷ সেই গর্তে কিছু ফেলে দিলে কি ঘটবে দেখা যাক ৷ অভিকর্ষজ ত্বরনের স্বাভাবিক নিয়মে ফেলে দেওয়া বস্তুটির গতি বাড়তে বাড়তে তা পৃৃৃৃথিবীর কেন্দ্রে গিয়ে সর্বোচ্চ গতি প্রাপ্ত হবে ৷ আমরা জানি যে v2=u2+2gs এখানে ধরি পৃৃৃৃথিবীর মাঝখানে যেতে গর্তে ফেলে দেওয়া বস্তুটির যে সময় লাগবে তা হল " t" সেকেন্ড ৷ ধরি " u " হল বস্তুটিকে যে গতিতে গর্তে ফেলে দেওয়া হল ৷ এক্ষেত্রে "0" বা শুন্য কারন বস্তুটিকে গর্তের মুখে ধরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে শুন্য গতিতে ৷ শুরু হয়েছে শুন্য গতি দিয়ে ৷ " g" হল অভিকর্ষজ ত্বরন যার মান 9.8m/s2 (প্রায়) ৷ " s" হল মোট যাত্রাপথ, এক্ষেত্রে পৃৃৃৃথিবীর ব্যাসার্ধের সমান ৷ যার মান হল 6371 কিলোমিটার বা 6371000 মিটার (গড়) ৷এর থেকে আমরা "v " এর মান পাই 7901.63 m/s. অর্থাৎ বস্তূটি যখন পৃৃৃৃথিবীর কেন্দ্রে পৌছাবে তখন তার গতি হবে 7901.63 m/s ৷ এর পর বস্তুর পৃৃৃৃথিবীর অপর প্রান্তের দিকে বস্তুটির উর্ধ গতি শুরু হবে এবং এক সময়ে পৃৃৃৃথিবীর অপর প্রান্তের গর্তের মুখে এসে বস্তুটি আবার শুন্য গতি প্রাপ্ত হবে তখন যদি বস্তুটিকে কেউ ধরে না ফেলে তাহলে আবার বস্তুটি নীচে পড়তে থাকবে এবং আবার একইভাবে পৃৃৃৃথিবীর কেন্দ্রে এসে সর্বোচ্চ গতিপ্রাপ্ত হবে ৷ এর পর আবার গতি কমতে কমতে যেখান থেকে বস্তুটিকে প্রথম ছাড়া হয়েছিল সেখানে এসে আবার শুন্য গতি প্রাপ্ত হবে ৷ যদি বস্তুটিকে কেউ ধরে না ফেলে তাহলে পৃৃৃৃথিবীর এপ্রান্ত থেকে ওপ্রান্ত চিরকাল বস্তু ওঠানামা করবে ৷

এই উত্তরটা আমি এক জায়গা থেকে কপি করেছি।এটা কি সঠিক?


করেছেন
যেখান থেকে কপি করেছেন সেই লিংকটি এখানে উল্লেখ করে দিন।

আর উত্তরের ক্ষেত্রে বলব এই উত্তরটি ভূল। 

কারন ভূ-পৃষ্ঠ থেকে উপরের কোন বস্তু যখন পড়তে থাকে তখন অভিকর্ষ বল g এর মান বাড়তে থাকে। এই মান ভূ-পৃষ্ঠের মানে মাটির কাছাকাছি সবচেয়ে বেশি।  এর মাটির সীমা থেকে ভেতরে কেন্দ্রের দিকে যতই যাবে ততই g এর মান কমতে থাকবে। এবং কেন্দ্রের কাছাকাছি আসলে এই g এর মান একদম কমে যাবে এবং কেন্দ্রে তা শুন্য ফলে কোন গতিও থাকবেনা। তাহলে আপনি পৃথিবীর কেন্দ্রে গতি ৭৯০১ প্রায় পেলেন কোথায়? কিসের ভিক্তিতে কোন থিউরিতে এই মান তা উল্লেখ করেননি। 

আর কেন্দ্র থেকে আবার বিপরীত দিকে বাকি অর্ধেক পথ মানে আবারও ভূ-পৃষ্ঠে বস্তুটি চলে আসবে কোন বলের গতিতে? যদি বস্তু নিজ থেকেই বল লাভ করে কেন্দ্র থেকে বাইরের দিকে যাবার গতি পায় তাহলে মহাকর্ষ অভিকর্ষ ভারসাম্যহীন হবে। তখন যেকোন বস্তুর মুক্তিবেগ শুন্য হবে। আর মুক্তিবেগ শুন্য হলে আমরা পৃথিবী থেকে বিনা শক্তি ব্যায়ে মহাশুন্যে চলে যাবো। অর্থাৎ আমরা উপরের দিকে লাফ দিলে উপরেই চলে যাবো। আর এটি হলে মহাবিশ্বই ধ্বংস হয়ে যাবে। কিন্তু দুঃখের বিষয় বাস্তবে তা নয়। আপনি যেখানে পেয়েছেন সে ব্যক্তি হয়ত ভেবেছেন যে, ধরন একটি ট্রেন বিশাল গতিতে এসে ঠিক স্টেশনের কাছে এসে ইঞ্জিন অফ করে দিল। কিন্তু ট্রেন তো থামবেনা কারন পূর্ব বেগের প্রভাবে ট্রেনটি আরও কিছু দুর যাবে।  কিন্তু ঐ ব্যক্তি এটা ভাবেনি যে ট্রেনটি জিরো গ্রাভিটির দিকে যাচ্ছেনা। কাজেই ঐ উত্তর ভূল। 

আর এখুনি লিংকটি দিয়া দিন। কপি কন্টেন্ট ঐ ব্যক্তির ক্রেডিট ছাড়া রাখা যাবেনা।

এ সম্পর্কিত কোন প্রশ্ন খুঁজে পাওয়া গেল না

3 জন সক্রিয় সদস্য
0 জন নিবন্ধিত সদস্য 3 জন অতিথি
আজকে পরিদর্শন : 2868
...