"ইন্টারনেট ও ওয়েবসাইট" বিভাগে করেছেন
ফেসবুকে আইডি আনব্লক কিভাবে করা যায়

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন
আসুন খুলে ফেলি প্রানঘাতী ফটো ট্যাগ ভেরিফিকেশন। দরকার

শুধু একটু ইচ্ছাশক্তি।। সাধারনত আমার ধারনা অনুযায়ী ফটো ট্যাগ ভেরিপেকশন হয়

অনেকগুলা কারনে। যেমনঃ অতিরিক্ত ফ্রেন্ড রিকু গ্রহন ও

পাঠান, স্প্যামিং করা, কিংবা অযথা বেকুবের মত সারাদিন

পাবলিককে ট্যাগ করার কারনে। সবথেকে ভয়াবহ কথা হল

ফেসবুক ট্যাগ ভেরিফিকেশন

করতে দিলে আপনাকে আপনাকে ট্যাগ করা ফটো গুলা দিবে না। আপনাকে উত্তর দিতে হবে আপনার বন্ধুদের কে ফটো ট্যাগ

করেছে। যা একেবারেই অসম্ভব। তাই জুকার মামুর উপর একটু

চালাকি করতে হবে। আসুন এবার দেখি কীভাবে এটা খুলবেনঃ প্রথমে একটি খাতা আর কলম নিন। এবার ভ্যারিফাই করার

জন্য যে ফটো দেবে, সেই

ফটোটার কিছুটা বর্ণনা লিখে নিন,কিংবা স্কীনশট নিন

যাতে পরবর্তীতে ওই ফটোটা দেখলে

খুঁজে বের করতে পারেন। যেমন-- "সানগ্লাস

চোখে একটা ছেলে, লাল টি-শার্ট, পিছনে একটা গরু"। তারপর বর্ণনার নিচ

দিয়ে যে ফ্রেন্ডগুলোর

নাম দেওয়া থাকবে, সেগুলো লিখে নিন।

এভাবে প্রায় ৫-৬ বার প্রচেষ্টায় আপনি ২০-৩০

টা ফটোর ডিটেইলস লেখার পর দেখবেন, আগের

ফটোগুলোই আপনাকে আবার ভ্যারিফাই করতে দিচ্ছে। কিন্তু, এবার ফ্রেন্ডদের নাম

ভিন্ন। এবার আসুন, আসল কাহিনীতে। মনে করুন,

আপনাকে একটি ছবি ভ্যারিফাই করতে প্রথমবার

ছয়টা নাম দেয়া হয়েছিলো A B C D E F,

যা আপনার খাতায় লেখা। ওই ফটোটিই

দ্বিতীয়বার ভ্যারিফাই করার জন্য দিলো নাম

দিলো G H C I J K। তাহলে খাতায় লেখা আগের নামগুলোর

সাথে মিলালেই স্পষ্ট বুঝতে পারবেন ফটোটায়

ট্যাগ করা ব্যক্তিটির আসল নাম C.

এভাবে, ছয়টি ফটোর মধ্যে নূন্যতম

চারটি ফটোর সঠিক উত্তর দিলেই

আপনি ভ্যারিফিকেশনে সফল। এভাবেই খুলে ফেলুন আপনার লকড হয়ে যাওয়া সাধের

আইডি। ফেসবুক আপনাকে এক ঘন্টা পর পর ট্যাগ ভেরিফিকেশন এর

সুযোগ দিবে। তাই আপনাকে প্রতি এক ঘন্টা পর পর একবার

করে সব কিছু করতে হবে। মোটামুটী সাত আটবার করলেই হবে। আর হাঁ দয়া করে কাউকে ফটো ট্যাগ করবেন না প্লিজ শেয়ার করতে পারেন

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

6 জন সক্রিয় সদস্য
0 জন নিবন্ধিত সদস্য 6 জন অতিথি
আজকে পরিদর্শন : 8209
...