+1 টি ভোট
"বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি" বিভাগে করেছেন (18 পয়েন্ট)
বন্ধ করেছেন
বন্ধ

1 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন (3.6k পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
তাপ এক প্রকার শক্তি। গতির সাথে তাপের সম্পর্ক রয়েছে। তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলে গতিশক্তি বৃদ্ধি পায়। আবার গতি বৃদ্ধি পেলে তাপের উদ্ভব হয়।

আমরা জানি তাপের প্রভাবে কঠিন পদার্থের প্রসারন হয়। একটি কঠিন পদার্থের ভেতর সেই পদার্থের অসংখ্যা অনু বা পরমানু রয়েছে। এবং পরমানুগুলো নিবিড়ভাবে একে অপরের পাশাপাশি অনস্থান করলেও অনেকগুলো পরমানুর পজিশনের মাঝে কিছু ফাকা স্থান থেকে যায়। একে আন্তঃআনবিক ফাকা স্পেস বলা হয়। অপরদিকে প্রতিটি পরমানু ইলেক্ট্রন প্রোটন সমন্বয়ে গঠিত। যখন বস্তুতে তাপ দেওয়া হয় তখন পরমানুগুলো এই তাপ শোষন করে ফলে ইলেক্ট্রন তার নিজ শক্তি স্তর বা কক্ষপথে গতিশক্তি ও কম্পন বৃদ্ধি পেয়ে উত্তেজিত অবস্থাপ্রাপ্ত হয়। এর ফলে ইলেক্ট্রনগুলো উচ্চ শক্তিস্তরে লাফিয়ে চলে যায়। এই ক্রিয়ার ফলে সামগ্রিক পরমানুটির কম্পন বেড়ে যায়। এভাবে বস্তু খন্ডের সকল পরমানু তাপের প্রভাবে সর্বোচ্চ বিস্তারে কম্পিত হতে থাকে এবং একটি পরমানু অপর পরমানুর সাথে  সংঘর্ষ করে দুরে সরে যায়। ফলে তাদের মধ্যে আন্তঃআনবিক ফাকা বেড়ে যায়। এভাবে পরমানুগুলো তার পাশের পরমানুকে ঠেলে দিয়া নিজে অধিক জায়গা দখল করে এবং অন্য পরমানুগুলোও নিজেদের জায়গা নিতে বাইরের দিকে ঠেলে দেয় ফলে বস্তুটি প্রসারিত হয়। এভাবেই কঠিন পদার্থ তাপের প্রভাবে প্রসারিত হয়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর
5 Online Users
0 Member 5 Guest
Today Visits : 1923
Yesterday Visits : 8512
...