0 টি ভোট
"রসায়ন বই" বিভাগে করেছেন (3.6k পয়েন্ট)
ক্ষারক হলে তা ক্ষার হয়না কেন?

1 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন (3.6k পয়েন্ট)
যেসকল ধাতুর অক্সাইড বা হাইড্রোক্সাইড এসিডের সাথে বিক্রিয়া করে লবন ও পানি উৎপন্ন করে  তাদেরকে ক্ষারক বলে।  

ধাতুর এই অক্সাইড কোনটি পানিতে  খুবই দ্রবনীয়, কোনটি সামান্য দ্রবনীয় আবার কোনটি অদ্রবনীয় হতে পারে। কিন্তু এরা সবাই যদি এসিডের সাথে বিক্রিয়া করে লবন ও পানি উৎপন্ন করে তাহলে তারা অবশ্যই ক্ষারক।

ধাতুর এই অক্সাইড বা হাইড্রোক্সাইড বা ক্ষারক গুলোর যেটি পানিতে দ্রবীভূত হয়ে ধাতুর পজেটিভ ও হাইড্রোক্সিল নেগেটিভ আয়ন দিতে পারে সেই ক্ষারক গুলোকে ক্ষার বলে।

দেখা যাচ্ছে যে, দ্রবীভুত হোক বা না হোক সকলে ক্ষারক অবশ্যই, আর যেগুলো দ্রবীভূত হয় শুধু সেগুলোই  ক্ষার।

ক্ষারের উৎপত্তি ক্ষারক থেকেই। তাই বলা যায় সকল ক্ষারই ক্ষারক কারন এরা ক্ষারকের মতই বিক্রিয়া ও বৈশিষ্ট্য দেখায়, কিন্তু  সকল ক্ষারক ক্ষার নয়, কারন সব ক্ষারক পানিতে দ্রবীভূত  হয়না।

যেমন ক্ষার হচ্ছে পটাশিয়াম  হাইড্রোক্সাইড, সোডিয়াম হাইড্রোক্সাইড।

আর ক্ষারক হচ্ছে ক্যালসিয়াম অক্সাইড, জিংক আয়রন অক্সাইড।      
10 জানুয়ারি "রসায়ন বই" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (542 পয়েন্ট) ধাতুর অক্সাইড কী ক্ষার হতে পারে?

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর
0 টি ভোট
2 টি উত্তর
0 টি ভোট
1 উত্তর
06 মার্চ "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Naeem (542 পয়েন্ট)
6 Online Users
0 Member 6 Guest
Today Visits : 6246
Yesterday Visits : 2293
Total Visits : 5083961
...