"গণিত" বিভাগে করেছেন
8

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন

তলঃ সাধারণ অর্থে কোন বস্তুর যে পৃষ্ঠ ভূমির সাথে যুক্ত হয়ে অবস্থান করে সেই পৃষ্ঠকে তল বলে।


জ্যামিতিতে, কোন বস্তুর যেকোন উপরিপৃষ্ঠকে তল বলে। 
আবার ঘণবস্তুর যেকোন যেকোন পৃষ্ঠকে তল বলা হয়। 

কারনঃ যেহেতু তল সবসময় ভূমির সাথে স্পর্শ করে থাকে। তাই বস্তুর কেন্দ্র থেজে উপরিপৃষ্ঠই ভুমির সাথে লেগে থাকে। বস্তুর যে অংশ যখন ভূমির সাথে লেগে থাকে তখন সেই পৃষ্ঠই তল হয়। একটি পৃষ্ঠ তল হলে তার বিপরীত পৃষ্ঠ উপর হয়। যেটিও তল হতে পারে বস্তু ঘুরে অবস্থান পাল্টালে।

বস্তুর তল হওয়ার শর্তঃ বস্তু পৃষ্ঠের যে স্থান যখন ভূমির সাথে যুক্ত হয় তখন তাকে তল বলে। তাই তল হতে গেলে বস্তুটির পৃষ্ঠ ভুমির সাথে যুক্ত হয়ে বস্তুটি স্থির রাখার যোগ্যতা থাকতে হবে।

যেমন একটি রাখলে বইটির তল প্রশস্ততার জন্য ভূমিতে কিছু স্থান দখল করে যার দ্বারা বই স্থির থাকে। এটি স্বার্থক তল।
আবার একটি পিন বা সুচ এর সুচালো অংশ প্রশস্ত নয় যা ভুমিতে স্থান দখল করে ভুমিতে স্থির রাখতে সাহায্য করে। তাই সুচ বা পিনের সুচালো প্রান্ত স্বার্থক তল নয়।  সুচ ভুমিতে রাখলেই কাত হয়ে পড়ে যাবে।

তলের প্রকারঃ তল দুই প্রকারঃ-
 ১। সমতল বা মসৃণ তল এবং 
২। বক্রতল বা অমসৃণতল।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
25 ফেব্রুয়ারি "গণিত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন রিপন
1 উত্তর
30 জুলাই 2020 "গণিত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Lamyea Noor
5 জন সক্রিয় সদস্য
0 জন নিবন্ধিত সদস্য 5 জন অতিথি
আজকে পরিদর্শন : 2540
...