in পদার্থ বিজ্ঞান by
সাধারণভাবে বর্তনীর তড়িৎ প্রবাহ অ্যামিটার অ্যাম্পিয়ার এককে পরিমাপ করে আর বর্তনীর বিভব পার্থক্য নির্ণয় ভোল্ট এককে পরিমাপ করে ভোল্টমিটার। কিন্তু এর বাইরেও যেসব পার্থক্য রয়েছে অ্যামিটার আর ভোল্টমিটারের মধ্য, সেগুলো একটু লিখে দিলে আমার উপকার হয়।

1 Answer

+1 vote
by
 
Best answer

অ্যামিটার

►    কোনো বর্তনীতে বিদ্যুৎ প্রবাহের পরিমাণ নির্ণয় করার যন্ত্রকে অ্যামিটার বলে।

►    কোনো বৈদ্যুতিক যন্ত্রের বিদ্যুৎ প্রবাহের পরিমাপ করতে অ্যামিটার সিরিজে সংযোগ করতে হয়।

►    অ্যামিটারের সঙ্গে সমান্তরালে একটি কম মানের রোধ যুক্ত থাকে; একে সান্ট বলে।

►    সান্টের রোধ কম হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে অ্যামিটার গ্যালভানোমিটারের সঙ্গেও একটি রোধ যুক্ত থাকে সিরিজে, যা অ্যামিটারকে নষ্টের হাত থেকে রক্ষা করে।

►   অ্যামিটার প্রবাহকে অ্যাম্পিয়ার এককে প্রদর্শন করে অর্থাৎ একক অ্যাম্পিয়ার। অ্যামিটারের গায়ে অ্যাম্পিয়ার এককে দাগাঙ্কিত থাকে।

ভোল্টমিটার

►    কোনো বিদ্যুৎ উৎসের দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্য নির্ণয় করার যন্ত্রকে ভোল্টমিটার বলে।

►    উৎসের ভোল্টের ক্ষেত্রে এর দুই প্রান্তের সঙ্গে যুক্ত করতে হয়। দেখতে সিরিজ সংযোগের মতোই, কিন্তু কোনো যন্ত্রের দুই প্রান্তের বিভব পার্থক্য নির্ণয় করতে এর দুই প্রান্তের সঙ্গে সমান্তরালে সংযোগ করতে হয়।

►    ভোল্টমিটারের সঙ্গে সিরিজে একটি উচ্চমানের রোধ যুক্ত থাকে।

►    ভোল্টমিটারে সান্ট থাকে না, তবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে গ্যালভানোমিটার অংশে সান্ট থাকতে পারে, যা ভোল্টমিটার পুড়ে যাওয়া থেকে রক্ষা করে।

►    ভোল্টমিটারের গায়ে ভোল্ট এককে দাগ কাটা থাকে অর্থাৎ ভোল্টমিটারের একক ভোল্ট।

3 জন সক্রিয় সদস্য
0 জন নিবন্ধিত সদস্য 3 জন অতিথি
আজকে পরিদর্শন : 5544
...