প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন নিবন্ধন বা রেজিষ্ট্রেশন ছাড়াই
0 টি ভোট
"ইতিহাস" বিভাগে করেছেন (346 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি ভোট
করেছেন (3k পয়েন্ট)
জিএনপিঃ জিএনপি হচ্ছে দেশের মোট জাতীয় উৎপাদিত প্রডাক্ট বা দ্রব্য। 

এখানে জাতীয়ভাবে একটি দেশের যেকোন দ্রব্যের মোট উৎপাদন বা আয়।

আয় বৃদ্ধির উপায়ঃ  একটি দেশে নানা প্রকার দ্রব্য উৎপাদন ব্যবস্থা থাকে।  এগুলো প্রচলিত ও অপ্রচলির হতে পারে।  প্রচলিত বলতে বোঝায় কমন দ্রব্য। বেশির ভাগ শিল্প দ্রব্য প্রচলিত। যেমন তৈরি পোষাক, ঔষধ, ধান, ডাল, তেল,  আলু , এছাড়া মৎস ও বনজ সম্পদ, তেল গ্যাস ইত্যাদি প্রচলিত দ্রব্য। এগুলোর উৎপাদন বৃদ্ধি, করে আয় বাড়ানো যায়, এক্ষেত্রে সরকারী নীতি, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, সহজলভ্য প্রাকৃতিক রিসোর্স ইত্যাদি সুবিধা প্রদান, শ্রমিকের নায্য মজুরি দিলে এসকল পন্যের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। এছাড়া অপ্রচলিত পন্য যেমন কারুশিল্প, লোকশিল্পজাত, হস্তশিল্প ইত্যাদি রয়েছে। এগুলোর মুল্যতা প্রচার প্রসারের ফলে উতপাদন বাড়ানো সম্ভব ফলে আয়ও বাড়বে। 

মোট কথা একটি দেশের সকল প্রকার দ্রব্য উতপাদন বৃদ্ধিই আয় বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

জিডিপিঃ জিডিপি হচ্ছে গ্রোস ড্যিমেস্টিক প্রডাক্ট। অর্থাত  দেশে উৎপাদিত মোট নিত্য ব্যবহার্য দ্রব্যাদি।

এখানে বেশিরভাগ কৃষি পন্য খাদ্যশস্য, মাছ, মাংস, বনজ যেমন কাঠ, শিল্প যেমন পোষাক ইত্যাদি। 

একটি দেশের মোট এসব পন্য উতপাদন বৃদ্ধি, কৃষির প্রসার, কৃষি যন্ত্রপাতি, সার, কীটনাশক, হাসমুরগী গবাদি পশুর টিকা ইত্যাদি সরবরাহ করে এগুলোর উতপাদন বাড়ানো যায়। এছাড়া সুতা উৎপাদন, কাচামাল সরবরাহ ইত্যাদি সুবিধা সৃষ্টি করতে পারলেই জিডিপি বাড়বে ফলে আয় বৃদ্ধি পাবে।

(সংক্ষেপ)    

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
0 টি উত্তর

4 Online Users
0 Member 4 Guest
Today Visits : 3066
Yesterday Visits : 7061
Total Visits : 3695570

বয়স গণনা করুন





     বয়স : 0 বছর     
            0 মাস
            1 দিন
...