প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন নিবন্ধন বা রেজিষ্ট্রেশন ছাড়াই
–1 টি ভোট
"সাধারণ জিজ্ঞাসা" বিভাগে করেছেন (56 পয়েন্ট)
বন্ধ করেছেন
বন্ধ

1 উত্তর

+1 টি ভোট
করেছেন (1.1k পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

জেফ বেজোস এখনকার বিশ্বের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। তিনি তার টাকা দিয়ে যা ইচ্ছা তাই করতে পারেন, কেননা এই টাকা তো তার নিজেরই। এবার এই ধনী ব্যক্তির ইচ্ছে হলো একটি ঘড়ি নির্মাণের, যা হবে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ঘড়ি।

ঘড়িটি কত বছর চলবে সেটাই সবচেয়ে বিস্ময়কর ব্যাপার। একশো নয়, এক হাজার নয়, ঘড়িটি চলবে ১০ হাজার বছর। অদ্ভূত দেখতে এই ঘড়িটি বানাতে খরচ হবে ৪২ মিলিয়ন ডলার। কিম্ভূতকিমাকার এই  ঘড়িটি দেখতে হবে ৫০০ ফিট লম্বা।

জেফ বেজোস এই দানবাকৃতির ঘড়িটিকে দীর্ঘমেয়াদী চিন্তার ফসল হিসেবে দেখতে চান। এই ঘড়িটির বিশেষত্ব হলো ঘড়িটি পৃথিবীর থার্মাল শক্তিতে চলবে। অর্থাৎ পৃথিবীর জলবায়ুর বৃত্তের সাথে সাথে ঘড়িটিও চলবে।

বেজোসের টুইটার একাউন্টের একটি ছবিতে দেখা যায় ঘড়িটি নির্মাণের কলাকৌশল। যেখানে অজস্র ইঞ্জিনিয়ার এবং কুশীলব বিশাল সব হুইল নিয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। প্রজেক্টের নাম দেয়া হয়েছে, টেন মিলেনিয়াম ক্লক। এই ঘড়ির প্রথম আইডিয়াটি ড্যানি হিলিস (প্রতিষ্ঠাতা- থিংকিং ম্যাশিনস) এর মাথা থেকে বের হয় সেই ১৯৮৯ সালে। পরবর্তীতে বেজোস এর ফান্ডিং করবেন বলে ঠিক করেন।

সবচেয়ে বিস্ময়কর বিষয় হলো এই বিশাল ঘড়িটি নির্মাণের সম্পূর্ণ কাজ হচ্ছে একটি পাহাড়ের ভেতরে। ঘড়িটি নির্মাণের পরেও আগ্রহী দর্শণার্থীদের ২০০০ ফিট পাড়ি দিয়ে উপরে উঠতে হবে। বেজোস কি পৃথিবীর সাথে একটা বড় ইয়ার্কি করছেন নাকি এটা তার নিছক খেয়াল তা অবসরে ভাববার বিষয়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি ভোট
1 উত্তর
10 মে 2020 "আইকিউ ও ধাঁ ধাঁ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rafiul mahir (112 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
1 উত্তর
–1 টি ভোট
1 উত্তর
29 অক্টোবর 2019 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md.Sazedur Rahman (56 পয়েন্ট)
0 টি ভোট
0 টি উত্তর
0 টি ভোট
0 টি উত্তর

10 Online Users
0 Member 10 Guest
Today Visits : 4848
Yesterday Visits : 6916
Total Visits : 3722461

বয়স গণনা করুন





     বয়স : 0 বছর     
            0 মাস
            1 দিন
...